wholesale jerseys and real Jerseys Wholesale

মুসলিম জনগোষ্ঠিতে এইডস-এর সার্বিক অবস্থা নিয়ে গবেষণাধর্মী বিশ্লেষণ

2013-06-07 12:22:22

মানব সভ্যতার ইতিহাসে সর্বাপেক্ষা ভয়ংকর রোগগুলোর মধ্যে এইডস অন্যতম। এর কারণে প্রতি মিনিটে ৩ জনের বেশী লোক মারা যায় (প্রতিদিন ৫০০০) এবং প্রতি মিনিটে ৫ জন এইচআইভিতে আক্রান্ত হচ্ছে। এইডস’র কষাঘাতে ১৯৮১ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২৫ মিলিয়ন মানুষ মারা গেছে। ২০০৯ সালের তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে ৩৩.৩ মিলিয়ন মানুষ এইচআইভি বহন করছে। প্রতি বছর ২.৬ মিলিয়ন মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছে এবং ১.৮ মিলিয়ন মারা যাচ্ছে (canadian pharmacy cheap cialis online )। এই এইডস’র কারণেই ১৬.৬ মিলিয়ন শিশু এতিম হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। দূষিত ব্লাড ট্রান্সফিউশন ও দূষিত সূঁচের মাধ্যমে এইচআইভি সংক্রমণ হলেও এর অন্যতম কারণগুলোর মধ্যে হচ্ছে সমকামিতা, বাছ-বিচারহীন যৌনাচার ও ইনজেকশনের মাধ্যমে মাদক সেবন



আফ্রিকান সভ্যতা আজ হুমকির সন্মুখীন। পৃথিবীর শতকরা ৬৭.৫ ভাগ এইচআইভি আক্রান্ত মানুষ আফ্রিকা মহাদেশে বাস করে। অস্তিত্ব রক্ষার জন্য রীতিমতো লড়াই করতে হচ্ছে আফ্রিকার দেশগুলোকে। গণস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ও সমাজ বিজ্ঞানীদের গবেষণায় দেখা যায় আফ্রিকার মতো ভয়ংকর এইচআইভি মহামারী কবলিত এলাকাগুলোতে মুসলিম জনগোষ্ঠি বা দেশে বিস্ময়করভাবে এইচআইভি সংক্রমণের হার তুলনামূলকভাবে অত্যন্ত কম। ২০০৪ সালে সাব-সাহারান আফ্রিকার ৩৮ দেশে এইচআইভি'র প্রকোপ নিয়ে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় স্পষ্টত প্রতীয়মান হয়, যে সকল দেশে যতবেশী মুসলিম জনগোষ্ঠী আছে সে সকল দেশসমূহে এইচআইভি সংক্রমণের হার তত কম [১]। পরবর্তীতে আরো অনেক সমীক্ষায় একই চিত্র ফুটে উঠেছে।



about cialis super active online গ্রাফ- যতবেশী মুসলিম, এইচআইভি সংক্রমণের হার তত কম [১]



প্রসংগত, আফ্রিকান দেশসমূহ সাধারণত খৃষ্টান (প্রোটেস্ট্যান্ট বা নন-ক্যাথলিক) অথবা মুসলিম অধ্যুষিত। ২০০২ সালে ইতালির মিলানে অনুষ্ঠিত এইডসের কনফারেন্সে উত্থাপিত ডাটার উপর ভিত্তি করে এক বিশ্লেষণে দেখা যায় মুসলিম অধ্যুষিত দেশসমূহে এইচআইভি সংক্রমণের হার অত্যন্ত কম। লক্ষণীয় ব্যাপার হচ্ছে নর্থ আফ্রিকান সাতটি দেশের মধ্যে সুদানে এইচআইভি’র হার বেশী। উওর সুদান মুসলিম অধ্যুষিত ও দক্ষিন সুদান খৃষ্টান সংখ্যাগরিষ্ঠ। ৪৫৬,৬০০ এইচআইভি আক্রান্ত মানুষের (UNAIDS, ২০০৪) মধ্যে ৪০০,০০০ হচ্ছে খৃষ্টান অধ্যুষিত দক্ষিণ সুদানে। অর্থাৎ সুদানের এইচআইভি আক্রান্তের ৮৭.৬% খৃষ্টান অধ্যুষিত এলাকার। একই ধরণের ধারা নাইজেরিয়াতেও বিদ্যমান [২]





এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারতে এইচআইভি/এইডস প্রকট আকার ধারণ করেছে। USAID তথ্য অনুযায়ী ভারতে বর্তমানে প্রায় ২৪ লক্ষ লোক এইচআইভিতে আক্রান্ত। বাংলাদেশে এইচআইভিতে সংক্রমিত লোকের সংখ্যা ১২ হাজার। বাংলাদেশের তুলনায় এশিয়ার কয়েকটি দেশের এইচআইভি’র তথ্যচিত্র দেখুন-



voltaren online australia



মুসলিম অধ্যুষিত দেশে এইচআইভি সংক্রমণের হার কম কেন? এই প্রশ্নের গূঢ় রহস্য উদঘাটনে অনেক বৈজ্ঞানিক গবেষণা হয়েছে। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় মুসলিমদের দৈনন্দিন জীবনাচার ও মূল্যবোধের সাথে এইচআইভি প্রাদূর্ভাবের যোগসূত্র আছে কিনা তা আফ্রিকার ৩৮টি দেশে সমীক্ষা চালিয়ে দেখা হয়। একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বিবেচনায় রাখতে হবে যে সারা বিশ্বের মুসলিম সমাজ ইসলামের মূল চেতনা থেকে অনেক দূরে সরে এসেছে। গবেষণালব্ধ তথ্য অনুযায়ী ক্ষয়িষ্ণু মুসলিম অধ্যুষিত সমাজেও অত্যন্ত কম এইচআইভি’র সংক্রমণের মূলে রয়েছে ছেলেদের খৎনা (আমাদের দেশে মুসলমানী হিসেবেও পরিচিত)। অন্যান্য আরো অনেক গবেষণাতেও দেখা যায় যে শুধুমাত্র খৎনার কারণেই এইচআইভি সহ অন্যান্য যৌন সংক্রামিত রোগের (গণোরিয়া, সিফিলিস, প্যানাইল বা পুরুষাঙ্গের ক্যান্সার) হার প্রায় ৬০% কমে যায়। আমেরিকা ও আফ্রিকার কয়েকটি দেশে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালেও এইচআইভি রোধে খৎনার কার্যকারিতা প্রমাণিত হয়েছে। পরীক্ষাগারেও দেখা গেছে পুরুষাঙ্গের (খৎনায় যে অংশ ফেলে দেয়া হয়) চামড়ার নীচে (Inner mucosa of foreskin) কিছু কোষ থাকে যেখানে এইচআইভি ইনফেকশনের জন্য ঝুঁকিবহুল। তাছাড়া যৌনকার্য সম্পাদনের সময় খৎনাবিহীন পুরুষাঙ্গের রক্তপাতের ঝুঁকি থাকে, যা এইচআইভি সংক্রমণে ভূমিকা রাখতে পারে [৩, ৪, ৫]। খৎনা নিয়ে বিস্তারিত জানতে আমেরিকার বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান CDC এর ওয়েবসাইটের তথ্য দেখা যেতে পারে (এখানে কমপক্ষে ৪০টি সায়েন্টিফিক পেপারের রেফারেন্স দেয়া হয়েছে)। হার্ভার্ডের ঐ একই সমীক্ষায় দেখা যায় মুসলিমদের প্রত্যাহিক রীতিনীতি যেমন অ্যালকোহল বর্জন, স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতাও এইচআইভি প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। ১৯৯৯-২০০৪ সালের সমীক্ষা অনুযাযী আমেরিকায় এইডস সহ অন্যান্য যৌণরোগ প্রতিরোধে খৎনার কার্যকারিতা বিবেচনা করে ৮০% ছেলে বাচ্চাকে খৎনা করা হয়েছে [৬]। সম্প্রতি WHO (World Health Organisation) and UNAIDS (the United Nations' HIV/AIDS programme) আয়োজিত এক সম্মেলনে ভারতে এইচআইভি প্রতিরোধে খৎনাকে অন্তর্ভূক্ত করার উপদেশ দেয়া হয়েছে- circumcision should indeed "be part of a comprehensive HIV prevention package."  এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পড়ুন- Should all Indian men be circumcised?



২০০৭ সালে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে দাবী করা হয়েছে যে সার্বিক বিচারে এইচআইভি রোধে খৎনার তেমন ভূমিকা নেই। কিন্তু মজার বিষয় হচ্ছে এই স্টাডি অনুযায়ী মুসলিম সমাজে এইচআইভি কম প্রাদূর্ভাবের সাথে পেশাদার যৌনকর্মী বা পতিতাদের সাথে যোগসূত্র দেখানো হয়েছে [৭]। যে দেশে যতবেশী পেশাদার যৌনকর্মী, সেখানে এইচআইভি সংক্রমণের হারও বেশী। কোন দেশের এইচআইভি সম্পর্কে ধারণা পেতে এটাকে মানদণ্ড হিসেবে গ্রহণ করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ এক কথায়, তুলনামূলকভাবে সংখ্যায় কম পেশাদার যৌনকর্মী থাকার কারণে মুসলিম দেশেগুলোতে বাছ-বিচার যৌনাচারের প্রকোপও কম।



বাংলাদেশের সামাজিক মূল্যবোধ অবক্ষয়ের করুণ চিত্র: যে ইসলামিক মূল্যবোধ এইচআইভি’র মতো ভয়ংকর রোগের প্রতিরোধে কার্যকরী বলে স্পষ্টত প্রতীয়মান, তা আমাদের সমাজে ক্রমেই অবক্ষয়ের দিকে দ্রুত ধাবিত হচ্ছে (বিস্তারিত জানতে দেখুন এখানে)। এ অবস্থা অনুধাবন করার জন্য নীচের কয়েকটি লাইনই যথেষ্ট। ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজের ৩০ জানুয়ারির রাতের ঘটনা (প্রথম আলো পত্রিকার বিবরণ)-


সেদিনের কথা মনে করতেই ডুকরে কেঁদে ওঠেন আরেক তরুণী। তিনি জানান, সেই উৎসবে অনেকে গেছেন স্বামীর সঙ্গে, কেউ সন্তানের সঙ্গে, কেউ বা সহপাঠীদের সঙ্গে। কয়েক হাজার উচ্ছৃঙ্খল তরুণের এ তাণ্ডব দেখে হতবাক সবাই। কলেজের পাশের এলাকা হামিদ উদ্দিন রোডের একটি মেসের ছাত্রী বলেন, ‘অশ্লীলতা এতটাই ভয়াবহ ছিল যে আমরা নিজেদের রক্ষা করতে পারছিলাম না।’ মীরবাড়ি সড়কের এক দোকান কর্মচারী বলেন, ‘লাঠি দিয়ে আঘাত করেও অনেক ছেলেকে তাণ্ডব থেকে ফেরানো যাচ্ছিল না।’


বিশ্ব ব্যাংকের ২০০৯ সালের cialis original online canada no prescription  অনুযায়ী বাংলাদেশে ১ লক্ষ পাঁচ হাজারের বেশী যৌনকর্মী রয়েছে। পতিতালয়ে প্রত্যেক পতিতা সপ্তাহে ১৮ জনের মত খদ্দের পেয়ে থাকে। অন্যদিকে রাস্তার ভাসমান ও হোটেলের পতিতাদের প্রতি সপ্তাহের খদ্দের সংখ্যা হচ্ছে যথাক্রমে ১৭ এবং ৪৪। এইচআইভি সংক্রমণ রোধে কনডম ব্যবহারে অতিরিক্ত গুরুত্ব আরোপ করার কারণে সাধারণ মানুষের বদ্ধমূল ধারণা জন্মে যে শুধুমাত্র কনডম ব্যবহার করেই এইডস’র মরণছোবল থেকে রক্ষা পাওয়া যেতে পারে। কিন্তু মনে রাখা দরকার কনডম ১০০% সফল নয়। অনেকগুলো সায়েন্টিফিক জার্নালে প্রকাশিত তথ্যের রিভিউ থেকে জানা যায় যে এইচআইভি সংক্রমণ রোধে কনডম ২০% ক্ষেত্রে ব্যর্থ [৮]। এর কার্যকারিতা অনেক কিছুর উপর নির্ভর করে।



সামাজিকভাবে নৈতিক অধঃপতন ও পার্শ্ববর্তী এইচআইভি কবলিত দেশসমূহ (ভারত, বার্মা, থাইল্যান্ড, নেপাল) অবস্থানের কারণে বাংলাদেশে এইডস বিস্তারে প্রচণ্ড ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। গবেষণালব্ধ তথ্য থেকে জানা যায় ভারতের ট্রাক ড্রাইভারদের মধ্যে এইচআইভি সংক্রমণের হার কমপক্ষে ৬ থেকে ৮ গুণ বেশী এবং তারা মালামাল পরিবহনের সাথে সাথে এইচআইভি’র ব্যাপক বিস্তার ঘটিয়ে থাকে। অচিরেই বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের মধ্যে সড়কপথে যোগাযোগ চালু হতে যাচ্ছে। তাই ট্রাক ড্রাইভারের মাধ্যমে দেশে যেন এইডস প্রসার লাভ না করতে পারে সেদিকে সরকারের নীতি নির্ধারকদের যথেষ্ট সচেতন হওয়া সময়ের দাবী।



এইচআইভিতে আক্রান্ত রোগীরা সাধারণত সমাজে ও এমনকি নিজের পরিবারের কাছেও অবহেলিত থাকেন। এজন্য সামাজিক লোক-লজ্জার ভয়ে তারা এইচআইভিতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি যথা সম্ভব গোপন রাখতে চেষ্টা করেন। এতে রোগের বিস্তার ত্বরান্বিত করতে পারে। সর্বোপরি মানবিক দৃষ্টিকোণ বিবেচনা করে এইডস-এ আক্রান্ত রোগীদের প্রতি সহানুভূতিশীল হওয়া সামাজিক দায়িত্বের অন্তর্গত।



তথ্যসূত্রঃ

[১] Gray, P. B. (2004). HIV and Islam: Is HIV Prevalence Lower Among Muslims? Social Science & Medicine, 58(9): 1751-1756.

[২] Gizachew Tiruneh (2009). Drminants of Adult HIV/AIDS Prevalence in Africa: Do Cultural VariationsMatter? Midsouth Political Science Review, 2009, Vol. 10, p103-124.

[৩] Patterson BK, Landay A, Siegel JN, et al. Susceptibility to human immunodeficiency virus-1 infection of human foreskin and cervical tissue grown in explant culture. Am J Pathol. 2002 Sep;161(3):867-73.

[৪] Szabo R, Short RV. How does male circumcision protect against HIV infection? BMJ. 2000 Jun 10;320(7249):1592-4.

[৫] Weiss HA, Thomas SL, Munabi SK, Hayes RJ. Male circumcision and risk of syphilis, chancroid, and genital herpes: a systematic review and meta-analysis. Sex Transm Infect. 2006 Apr;82(2):101-9; discussion 10.

[৬] Risser JM, Risser WL, Eissa MA, Cromwell PF, Barratt MS, Bortot A. Self-assessment of circumcision status by adolescents. Am J Epidemiol. 2004 Jun 1;159(11):1095-7.

[৭] Talbott JR (2007) Size Matters: The Number of Prostitutes and the Global HIV/AIDS Pandemic. PLoS ONE 2(6): e543. doi:10.1371/journal.pone.0000543

[৮] Weller SC, Davis-Beaty K. Condom effectiveness in reducing heterosexual HIV transmission. Cochrane Database of Systematic Reviews 2007, Issue 4. Art. No.: CD003255. DOI: 10.1002/14651858.CD003255

[৯] More than 40 scientific references for male circumcision in CDC website

এডিটরনোট:    0

প্রকাশিত সব তথ্য আর মতামত লেখকের আর মন্তব্য কারীর ব্যক্তিগত, সাইয়েন্টিফিক বাংলাদেশের নয়। সাইয়েন্টিফিক বাংলাদেশ আইনগত বা অন্য কোন দায় গ্রহণ করবে না তথ্যের সঠিকতা বা পাঠকের মন্তব্যের জন্য।

 
Loading... Please wait...